মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০১৫ ইং | ২০শে শ্রাবণ, ১৪২২ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) | ১৮ই শাওয়াল, ১৪৩৬ হিজরী

Home - রংপুর বিভাগ - উপজেলা চেয়ারম্যান ইউএনও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সাংবাদিকসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

উপজেলা চেয়ারম্যান ইউএনও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সাংবাদিকসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

পীরগঞ্জ প্রতিনিধি।। পীরগঞ্জের উপজেলার চেয়ারম্যান  জিয়াউল ইসলাম জিয়া, ইউএনও এবিএম ইকতেখারুল ইসলাম খন্দকার উপজেলার স্স্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডা:আ: মজিদ সহ ২০ জনের বিরুদ্ধে পীরগঞ্জ উপজেলা সহকরী জজ  আদালতে এক ‘‘ঘোষনামূলক ও বাধ্যতামূলক ডিক্রী’’ মমলা দায় করা হয়েছে। উপজেলার ভোমরাদহ গ্রামের আয়ুব আলীর পুত্র  তৈয়বুর রহমান সংক্ষদ্ধ হয়ে গত বৃহপতিবার উক্ত মামলা দায় করেন।

মামলার অন্য বিবাদীগন হলেন ‘প্রথম আলো’র পীরগঞ্জ প্রতিনিধি কাজী নুরুল ইসলাম,পীরগঞ্জ প্রেসক্লাব সম্পাদক জয়নাল আবেদিন বাবুল,দৈনিক লালগোলাপ প্রতিনিধি বকুল আলম, সৈয়দপুর ইউপি চেয়ারম্যন একরামুল হক, পীরগঞ্জ সরকারী কলেজের সহকারী অধ্যাপক একরামুল হক, পীরগঞ্জ মহিলা  কলেজের সহকারী অধ্যাপক ছামছিয়ারা বেগম, পীরগঞ্জ বণিক সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হালিমা খাতুন, পাইলট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মফিজুল হক, বলদিয়ারা হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মূসা সরকার, উপজেলা মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দু নূর, পীরগঞ্জ হাসপাতালের আর.এম.ও ডাঃ কামাল আহমেদ, গাইনী কন্সাল টেন্ট ডঃ নজরূল ইসলাম, মেডিকের অফিআর আবুল কালাম আজাত, ইএডিও(কমস)এর এসএস সামসুন জোহা সরকার পোগ্রাম অফিসার ইউএন এফ পি এ সামসুজ জামান ,খনগাঁও ইউপি চেয়ারম্যানের স্ত্রী আনজুমানারা বেগম,ও পীরগঞ্জ হাসপাতালের এম্ব্যুণেঞ্চ ডাইভার রফিকুল ইসলাম। মামলায় ঠাকুরগাওয়েরজেলা প্রশাসককেওএমাকাবেলা বিবাদী করা হয়েছে।

মামলার বিবরনের বলা হয় পীরগঞ্জ হাসপাতাল সংশ্লিষ্ট এম এন এইচ কমিটি  গত ৩০/০৬/২০১৪ ইং তারিখে সিদ্ধান্ত গ্রহন করে যে, “দীর্ঘদিন যাবত জেল হাজতে আটক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পীরগঞ্জ ঠাকুরগাও এর এ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার মোঃ রফিকুর ইসলাম…………. দীর্ঘদিন চাকুরীতে অনুপস্থিত থাকায় এবং চারিত্রিক ক্রটি’র কারনে জেল হাজতে যাওয়ার ফলে তাকে চাকুরীতে হতে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত সভায়  সর্বসম্মতি ক্রমে গৃহিত হয় এবং পরবর্তীতে সে জেলা হাজত হতে  মুক্তি পেলেও তাকে ঐ চাকুরীতে এবং ঐ পদে পুনর্বহাল করা যাবে না বলে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়’। উক্ত সভায় নতুন ড্রাইভার নিয়োগের জন্যও সিদান্ত গৃহিত হয় এবং উপজেলা চেয়ারম্যানের নোটিশ বোর্ডে বিজ্ঞপ্তি ঝুলানো হয়। সে অনুয়ায়ী বাদী উক্ত পদের জন্য আবেদন করেন। পরর্বতীতে রহস্যজনক ভাবে ২৩/০৮/২০১৪ তারিখে এমএনএইচ কমিটির সভায় বরখাস্ত কৃত ড্রাইভার  রফিকুল ইসলাম কে পূনর্বহাল করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এমএনএইচ কমিটির ৩০/০৬/২০১৪ ও ২৩/০৮/২০১৪ তারিখের সভার সিদ্ধান্ত স্ববিরোধী, অন্যায় প্রভাব সম্বলিত, যোগসাজসি ও বেআইনি হওয়ায় বাদী সংক্ষুদ্ধ হয়ে  আদালতে মামলা দায়ের করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য

Leave a Reply